আজ রবিবার ১লা কার্তিক, ১৪২৮, ১৭ই অক্টোবর ২০২১

||
  • প্রকাশিত সময় : এপ্রিল, ২৬, ২০২০, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ




স্মৃতিময় মোনায়েম স্যার ও শোকাবহ আমি । ইমন সরকার

প্রফেসর (অবঃ) কাজী এম. এ. মোনায়েম স্যার আমার পরম শ্রদ্ধেয় শিক্ষক ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে আমি আমার এই মহান শিক্ষকের অত্যন্ত স্নেহভাজন একজন সৌভাগ্যবান ছিলাম। আমার সকল আপদ বিপদে স্যার আমাকে তার পরামর্শ দিয়ে পাশে থেকেছেন। তিনি হাজী কাশেম আলী কলেজের অধ্যক্ষ থাকাকালীন আমাকে ডেকে নিয়ে খন্ডকালীন ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত করান। তিনি আমাকে নিয়ে অহংকার করতেন এবং ভরসা করতেন সবটুকু।

কর্মজীবনে স্যার অত্যন্ত নিষ্ঠাবান ছিলেন। আমরা আনন্দ মোহনে পড়ার সময় দেখেছি স্যার প্রতিদিন কলেজে যেতেন এমনকি গৌরীপুর সরকারি কলেজে পড়াকালীন স্যারের আনন্দদায়ক বাংলা পড়ানো ভুলে গেছে এমন ছাত্র ছাত্রী নিতান্তই কম পাওয়া যাবে। স্যার একজন দক্ষ সাংবাদিক ছিলেন। আমাকে সাংবাদিকতার উপরে বিভিন্ন সময় তিনি কৌশল শিখেয়েছেন। একসাথে পাক্ষিক সুবর্ন বাংলায় কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলাম। তিনি পরামর্শ দিয়েছিলেন বলেই অন্যকথন নামে একটি অনলাইন প্রকাশনা শুরু করে তার সম্পাদনার কঠিন কাজটি করতে পারছি। ব্যক্তিজীবনে তিনি একজন সফল ও সুপরিচিত সাংবাদিক ছিলেন। গৌরীপুর উপজেলা প্রেস ক্লাবের তিনি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।

স্যার সমাজ পরিবর্তন তথা মানুষের অধিকারে বিশ্বাসী ছিলেন। স্যারের আদর্শে অনুপ্রানিত হই বলে শ্রদ্ধেয় রেবেকা আপার (অনারারী নির্বাহী পরিচালক) উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত অন্যচিত্র উন্নয়ন সংস্থায় স্যারকে অনারারি চেয়ারম্যান হিসেবে অনুরোধ করে নিযুক্ত করি। দুইবার স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পরেও তিনি অন্যচিত্রতে যেকোন অনুষ্ঠানে ও সভায় নিয়মিত অংশ নিয়েছেন। স্বপ্ন দেখেছেন, দেখিয়েছেন এবং আমার দেখা স্বপ্নে তিনি অনুপ্রেরনা যুগিয়েছেন।

আমার প্রতিষ্ঠান এনটিটি একাডেমিক কোচিং ও এনটিটি রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলে স্যার প্রজ্ঞার সাথে উপদেশ দিয়ে যুক্ত ছিলেন। আমি ডাকার পর স্যার সাড়া দেননি এমন কোন ঘটনা আমি মনে করতে পারিনা। একসাথে বনভোজন থেকে শুরু করে অনেক স্মৃতিতে স্যার আজও অম্লান।

কলেজ জীবনে স্যার বিএনসিসি প্লাটুনের দায়িত্বে আর আমি তখন রোভার স্কাউট করি। স্যার বিএনসিসির রুমে ডেকে ডেকে সুপরামর্শ দিতেন। প্রকাশ্যে যেকোন বক্তব্যে স্যার ঘোষনা দিয়ে বলতেন তোকে অনেকেই হিংসা করে ও করবে, বিচলিত হবিনা বরং সাহস নিয়ে এগিয়ে যাবি। আমি জানি ইমন যা করতে চায় সবকিছুতেই সে দক্ষ।
আমি আমার ভাষা দিয়ে স্যারের সাথে আমার অতীতগুলো বর্ননা করে শেষ করতে পারবোনা। স্যার আমার দেখা কিংবদন্তী যা অনেকেই হয়তো আবিষ্কার করতে পারেনি।

স্যারের এই হঠাৎ চলে যাওয়া আমার কাছে পিতৃহারা সন্তানের শোক সইবার মতোই। আমার জীবনের প্রতিটি অধ্যায়ে স্যারকে আমি বারবার অনুভব করবো। যদি স্বপ্নে কখনো স্যারের সাথে দেখা হয় আমি ওনাকে বলবো – “স্যার! আমার যোগ্যতার সীমাবদ্ধতা থাকলেও আপনার আস্থা আমি অবিচল রাখবো। আপনার ইমন হেরে যেতে পারেনা স্যার।” স্যার বলতেন ভালোবাসার চেয়ে বড় কোন ধর্ম হতে পারেনা। প্রতি রমজানে অন্তত একদিন স্যারের সাথে ইফতারে অংশ না নিলে কষ্ট পেতেন। কিছুদিন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলেই অভিমান হতো স্যারের। আনন্দ পিয়াসী মানুষটা চিরকাল আনন্দ দিয়ে গেছেন অসংখ্য শিক্ষার্থী, সহকর্মী ও পরিজনদের। অথচ নীরবে স্যার বিদায় জানালেন পৃথিবীকে, আমরা স্যারের কাছে ক্ষমা চাওয়ার সুযোগ ও পেলাম না।

এই গুনি মানুষ লেখক, সুপরিচিত সাংবাদিক, উন্নয়নকর্মী, কলামিস্ট এবং সরকারের শিক্ষা ক্যাডারের অবসরপ্রাপ্ত প্রফেসর ও অন্যচিত্র উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী কমিটির অনারারী চেয়ারম্যান কাজী এম.এ মোনায়েম স্যারের মৃত্যুতে আমি শোকাহত। আমার সকল প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে স্যারের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছি। আমাদের মাঝেই আপনি বেচে থাকবেন অনন্তকাল। পরপারে ভালো থাকুন স্যার।

ইমন সরকার
উন্নয়নকর্মী ও যুগ্ম সম্পাদক
অন্যচিত্র উন্নয়ন সংস্থা
১৩/ক, গুলকিবাড়ি, ময়মনসিংহ
ইমেইল : Imon@onnochitra.org




Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও খবর




অনলাইন জরিপ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, ক্ষমতা ছাড়তে না চাওয়াই অপসংস্কৃতি। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

View Results

Loading ... Loading ...

পুরনো সংখ্যার নিউজ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১