আজ রবিবার ১লা কার্তিক, ১৪২৮, ১৭ই অক্টোবর ২০২১

বাহাদুর ডেস্ক || ওয়েব-ইনচার্জ
  • প্রকাশিত সময় : অক্টোবর, ৩, ২০২১, ১২:২৯ অপরাহ্ণ




সুয়ারেজের ক্ষমা প্রার্থনায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় বার্সা কোচ!

অ্যাথলেটিকোর বিপক্ষের ম্যাচকে বার্সা কোচ রোনাল্ড কোমানের ভাগ্য নির্ধারণী বলা হচ্ছিল।

এমনিতেই দলের দুর্দশায় সভাপতি লাপোর্তার সঙ্গে সম্পর্কটা ভালো যাচ্ছে না কোমানের। যে কোনো মুহূর্তে হাতে পেতে পারেন বরখাস্তের কাগজ।

আর সেই অশনি সংকেতকে যেন আরও জোরদার করে দিলেন বার্সেলোনার সাবেক তারকা লুইস সুয়ারেজ।

সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে ম্যাচটি ওপেন চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলেন বার্সা থেকে চোখের জলে বুক ভিজিয়ে অ্যাথলেটিকোতে যোগ দেওয়া সুয়ারেজ।

ম্যাচের আগের দিন সুয়ারেজ বলেছিলেন,  ‘আমি কর্মফলে বিশ্বাস করি। আমি ভুলিনি গত বছর প্রাক-মৌসুমে বার্সেলোনা আমাকে একা একা অনুশীলন করতে পাঠায়।  যেন আমি রেগে যাই। কিন্তু আমি তখন কোচের কথা মেনে পেশাদার আচরণ করেছি। আমি তখন পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েছি এবং কোনো কথা না বলে প্রতিদিন একইভাবে অনুশীলন করেছি। কারণ আমাকে এটিই করতে হতো। আমি এমনই এবং শেষমেশ ভাগ্যই সব নির্ধারণ করে দেবে।’

অবশেষে চ্যালেঞ্জে জয়ী হয়েছেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। বার্সাকে হারিয়ে সেই অপমানের প্রতিশোধ নিলেন আবারও।

মূলত ম্যাচ জয়ের নায়ক সুয়ারেজেই। দুই গোলের একটি করেছেন তিনি নিজে, অপরটি করিয়েছেন লেমারকে দিয়ে।

নিজের সাবেক দলের বিপক্ষে এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে সুয়ারেজ বুঝিয়ে দিলেন—   এ মৌসুমের আগের মৌসুমে বুড়ো বলে কোমান তাকে যেভাবে তাড়িয়ে দিয়ে মূলত নিজ পায়ে কুড়াল মেরেছেন। বুড়ো হাড়ের ভেলকি সুয়ারেজ দেখিয়ে চলেছেন অ্যাথলেটিকোতে। গত মৌসুমে লা লিগা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তার দল।

তবে অপমানজনক বিদায়ের দুঃসহ স্মৃতির কথা না ভুললেও সাবেক দল বার্সার প্রতি আবেগের এতটুকুন কমেনি সুয়ারেজের।

ম্যাচে গোল করলেও উদযাপন করবেন না বলে জানিয়েছিলেন। সেটিই করলেন। আরেকটু আপ্লুত হয়ে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি।

৪৪তম মিনিটে ভুল করেন বার্সার ডিফেন্ডাররা। সেই সুযোগ কাজে লাগান সুয়ারেজ। জোয়াও ফেলিক্সের অসাধারণ এক পাস থেকে ডান প্রান্ত থেকে দুর্দান্ত এক শটে আথলেটিকোর পক্ষে ব্যবধান ২-০ করেন তিনি।

কথামতো এই গোল দিয়ে তা উদযাপন করেননি সুয়ারেজ। গোলের পর তার সতীর্থরা যখন উৎসব করতে দৌড়ে এসেছেন, সুয়ারেজ বার্সেলোনার সমর্থকদের দিকে দুই হাত জোড় করে ক্ষমা চাওয়ার ভঙ্গি করেছেন।

তবে ক্ষমা চাইলেও হয়তো এই গোল দিয়ে বার্সা কোচ কোমানের সর্বনাশ ডেকে এনেছেন সুয়ারেজ। দল হেরে যাওয়ায় ক্যাম্প ন্যুয়ে তার চাকরি আর থাকছে না বলেই ধারণা সবার।

লালকার্ড দেখায় এ ম্যাচে ডাগআউটে থাকতে পারেননি কোমান। গ্যালারিতে বসেই দলের ব্যর্থতা আর সুয়ারেজের ক্ষমা প্রার্থনার দৃশ্য দেখেছেন তিনি। ওই সময় গ্যালারিতে বসে কোমানের রাগ দেখানোর ভঙ্গিও ফুটে উঠেছে ক্যামেরায়।

 




Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও খবর




অনলাইন জরিপ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, ক্ষমতা ছাড়তে না চাওয়াই অপসংস্কৃতি। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

View Results

Loading ... Loading ...

পুরনো সংখ্যার নিউজ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১