ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিন্টুর উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে খাদ্য বিতরণ

এম.এ আজিজ, ময়মনসিংহ :

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টুর উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ বিতরণ করা হয়েছে। ময়মনসিংহ লকডাউনে থাকায় সিটির অন্যান্য ওয়ার্ডের ন্যায় ৬নং ওয়ার্ডে অসহায়, দিন মজুর, কর্মহীন, দিন এনে দিন খাওয়া মানুষদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। এ সব অসহায়দের পাশে সামান্য সহযোগীতার প্রয়াস হিসাবে সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু ধারাবাহিকভাবে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করছেন। শুক্রবার সকালে নগরীর ৬নং ওয়ার্ডের নাসিরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ৮ শত ৫০ বেকার, কর্মহীন, অসহায় মানুষদের মাঝে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়। এ সময় শহরের ৩নং ফাঁড়ির ইনচার্জ দুলাল আকন্দ সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য উপস্থিত ছিলেন।
সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সিটি কর্পোরেশনের প থেকে অসহায় মানুষদের মাঝে নিয়মিত খাদ্য সহায়তা পৌছে দেয়া হচ্ছে। কখনো ক্যাম্প করে আবার কখনো রাতব্যাপী নিজস্ব যানবাহনযোগে এই খাদ্য সহায়তা অসহায়দের ঘরে ঘরে পৌছে দেয়া হচ্ছে। একজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর নয় ওয়ার্ডের অভিভাবক হিসাবে যতœশীল হয়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়েছি।
তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে কর্মহীন দিনমজুর, অসহায়, বয়োবৃদ্ধ, কর্মহীন, প্রতিবন্ধী ও নতুন করে বেকার হয়ে পড়াদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগী পৌঁছে দিতে এই কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। করোনা দুর্যোগকালীন সময়ে যেসকল ব্যক্তি সহযোগিতা পাবার যোগ্য তাদের কাছে কিংবা ঘরে এই সহায়তা পৌছে দিতে আমি আন্তরিকভাবে চেষ্টা করছি। তিনি আরো বলেন, ময়মনসিংহ সিটির ৬নং ওয়ার্ডে একজন মানুষও না খেয়ে থাকবেনা। যারা পায়নি পরবর্তীতে তাদেরকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হবে।তিনি আরো বলেন, এর আগেও দুই দফায় তিনশত ৬০জনের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়। সবমিলে প্রায় ৬ মেঃ টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। এর পরও বলবো, আপনারা নিজ ঘরে থাকুন, আমাদের এই কার্যক্রমকে সহযোগিতা করুন। অযথা কেউ ঘোরাফেরা করবেন না, নিজের পরিবারের এবং দেশের মানুষকে বিপদের দিকে ঠেলে দেবেন না। শুক্রবার সাড়ে শত পরিবারের মাঝে ৫ কেজি চাল ও এককেজি করে আলু বিতরণ করা হয়। কাউন্সিলর মিন্টু এছাড়াও বলেন, এর আগে করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে রাস্তার মোড়ে মোড়ে, বিভিন্ন বাসাবাড়ি ও সানকিপাড়া বাজারসহ একাধিক স্থানে ৪৫ টি পানি রাখার ড্রাম ও সাবান দেয়া হয়েছে। এছাড়া সংক্রমণরোধে ওয়ার্ডবাসির মাঝে মাস্ক এবং এক হাজার পরিবারের মাঝে ৫ হাজার সাবান বিতরণ করা হয়েছে। কাউন্সিলর মিন্টু আরো বলেন, ৬নং ওয়ার্ডে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকায় টহল ও মনিটরিং করা হচ্ছে। এছাড়া নিয়মিত মশক নিধন ওষুধ ও জীবানুনাশক ¯েপ্র করা হচ্ছে ওয়ার্ডের প্রতিটি অলিগলিতে। তিনি এ জন্য সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।