মোদির রোষানল: মাহাথিরের দিকে হাত বাড়ালেন ইমরান খান

In this handout photo taken and released by Malaysia's Department of Information on February 4, 2020, Malaysia's Prime Minister Mahathir Mohamad (R) shakes hands with Pakistan's Prime Minister Imran Khan after a joint press conference in Putrajaya. (Photo by Muhairul Azman Supian / Malaysia's Department of Information / AFP) / RESTRICTED TO EDITORIAL USE - MANDATORY CREDIT "AFP PHOTO / Malaysia's Department of Information" - NO MARKETING - NO ADVERTISING CAMPAIGNS - DISTRIBUTED AS A SERVICE TO CLIENTS

বাহাদুর ডেস্ক :

পামঅয়েল আমদানি বন্ধের হুমকি সত্ত্বেও ভারতের কাছে নতিস্বীকার না করায় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

দুদিনের মালয়েশিয়া সফরের শেষ দিন মঙ্গলবার তিনি বলেন, আদর্শ ও নীতির প্রতি তার সবসময় বিশ্বাস রয়েছে। যে কারণে মাহাথির মোহাম্মদকে আমি সম্মান করি ও ভালোবাসি।

দুই নেতার বৈঠকের পর এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ইমরান খান বলেন, মালয়েশিয়া থেকে আরও বেশি পামঅয়েল কিনতে পাকিস্তান প্রস্তুত। বিশেষ করে আমরা খেয়াল করলাম যে কাশ্মীর ইস্যুতে সমর্থন দেয়ায় মালয়েশিয়ার পামঅয়েল কেনা বন্ধ করতে ভারত হুমকি দিচ্ছে, সেই ক্ষতিপূরণে পাকিস্তান নিজের জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টাটা করবে।

এদিকে আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও শান্তিবিষয়ক এক সম্মেলনে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রভাবশালী, শক্তিশালী ও ঐক্যবদ্ধ থাকায় মাত্র এক কোটি ২০ লাখ ইহুদির বিরুদ্ধে পশ্চিমা বিশ্ব টু শব্দটি করছে না। অথচ ১৩০ কোটি মুসলমানকে বিশ্বের সর্বত্র নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, ইরাক ও আফগানিস্তানসহ সর্বত্র মুসলমানদের বিপর্যয়ের কাহিনি। এর কারণ হচ্ছে– আমাদের কোনো ঐক্য নেই। আমাদের মধ্যে বিভক্তির কোনো শেষ নেই। এমনকি কাশ্মীর নিয়ে ওআইসির বৈঠকেও আমরা ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারিনি।

দুদিনের মালয়েশিয়া সফরের শেষ দিনে একটি কনফারেন্সে তিনি আরও বলেন, মুসলমানদের বিরুদ্ধে নিপীড়নের জবাব হচ্ছে– মুসলিম দেশগুলোর ঐকবদ্ধ হওয়া। কাজেই মিয়ানমার ও কাশ্মীরে যা ঘটছে, যেখানে কেবল ধর্মের কারণে মুসলমানদের নির্যাতিত হতে হচ্ছে, এমন বিষয়গুলোতে তাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, অধিকৃত কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারেনি ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) মুসলমান দেশগুলো।

ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে সাম্প্রতিক সাংঘর্ষিক অবস্থা কেটে গেছে জানিয়ে ইমরান খান আরও বলেন, দুই মুসলিম দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমাতে পাকিস্তান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

পামঅয়েল আমদানি বন্ধ করে দিতে ভারতীয় হুমকি সত্ত্বেও কাশ্মীর ইস্যুতে নীরব না থাকায় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের প্রশংসা করেছেন ইমরান খান।

টি.কে ওয়েভ-ইন