মুজিববর্ষের পোস্টার লাগানোকে কেন্দ্র করে : পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের হাত কেটে দিয়েছে শুভ্র গ্রুপের কর্মীরা

প্রধান প্রতিবেদক :
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন উপলক্ষে পোস্টার লাগানোকে কেন্দ্র করে পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক উমর ফারুক স্বাধীনের (২৭) হাত কেটে দিয়েছে শুভ্র গ্রুপের কর্মীরা। ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বঙ্গবন্ধু চত্বরে পোস্টার লাগানোকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মাঝে বাকবিতণ্ডা হয় রাত ৯টার দিকে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

গৌরীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আল মুকতাদির শাহীন জানান, বঙ্গবন্ধু চত্বরে মুজিববর্ষ উপলক্ষে পোস্টার লাগানো ও আলোক সজ্জার কাজ চলছিলো রোববার রাতে। সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ করার সময় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র’র লোকজন এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিনের প্যানা লাগানো বাধা দেয়। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। ভারতে অবস্থানরত শুভ্র মুঠোফোনে পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক উমর ফারুক স্বাধীনকে হুমকি প্রদান করে আসছিলো। রাত ৯টার দিকে শুভ্র’র লোকজন গৌরীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুকতাদির খান পাঠান তুষারকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করে। যেহেতু হত্যার হুমকি ও কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদককে লাঞ্চিত করা হয়েছে- এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপর মুজিববর্ষের কাজ শেষ করে রাত সাড়ে ১২টার বাসায় ফেরার পথে কালীপুর এলাকায় অতর্কিতভাবে শুভ্র’র লোকজন হামলা চালায়। ফারুককে হত্যার উদ্দেশ্যেই মাথায় কুব দিয়েছিলো, হাতে ফেরানোয় বাম হাত কেটে গেছে। এ ঘটনায় আমি নিজেই বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছি।

অপরদিকে ভারতে অবস্থানরত উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র ভিডিও কনফারেন্সে এ প্রতিনিধিকে জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ ও তার পুত্র তানজীর আহমেদ রাজীবের লোকজন বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী ছবি সম্বলিত আমার প্যানা ছিঁড়ে সেখানে এমপি’র প্যানা লাগিয়েছে। হামলা বা প্যানা লাগানো বিষয়ে আমার কিছুই জানা ছিলো না। আগামী পৌর নির্বাচনে আমি মেয়র প্রার্থী- সুনাম নষ্ট করতে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি জানান, বঙ্গবন্ধু চত্বরে সৌন্দর্যবর্ধন ও আলোকসজ্জার কাজ করা হয়েছে। সেখানে শুভ্র’র ১৫আগস্টের শোক দিবসের প্যানা ছিলো। যার কার্যকারিতা নেই। সেগুলো পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সরিয়ে মুজিববর্ষের প্যানা লাগানো হয়েছে। মুজিববর্ষের প্যানাকে লাগানোকে কেন্দ্র করে একজন ছাত্রলীগ কর্মীর হাত কেটে ফেলা-অত্যন্ত দুঃখজনক, ন্যাক্কারজনক।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি শেখ মুকতাদির শাহীন বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছে। শুভ্রও এ মামলার আসামী। সকল আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।
মামলার বাদী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মুকতাদির শাহীন জানান, ঘটনার দিন রাত সাড়ে ১২ টার দিকে কালীপুর এলাকায় উমর ফারুক স্বাধীনের ওপর মাসুদুর রহমান শুভ্র’র অনুসারীরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। সে বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হামলার আগে মাসুদুর রহমান শুভ্র ভারত থেকে মোবাইল ফোনে ফারুককে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছিল। এ হামলার ঘটনায় মাসুদুর রহমান শুভ্রসহ তার অনুসারী ফারুক মিয়া (২৬), পাভেল মিয়া (২৭), হিরামন (২২) ও টিপুর (২৫) বিরুদ্ধে গৌরীপুর থানায় মামলা করা হয়েছে।

টি.কে ওয়েভ-ইন