মুক্তাগাছায় গরু ডাকাতির ঘটনায় ডিবির হাতে আরো একজন গ্রেফতার

এম এ আজিজ, স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় গরু ডাকাতির ঘটনায় আরো একজনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। তার কাছ থেকে গরুর মাংস বিক্রির ৫৮ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম মোঃ মুঞ্জু। ঢাকার আশুলিয়া থেকে রবিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার তাকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ নিয়ে গরু ডাকাতির ঘটনায় ৬ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।
ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় আরব এগ্রো ফার্মের দারোয়ানকে বেধে ২০ লাখ টাকা মুল্যের ১৬টি গরু ডাকাতির ঘটনায় ডিবি পুলিশ টানা অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার ৫ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক, একটি প্রাইভেটকার, তালা কাটার একটি কাটার মেশিন, তিনটি চাকু, ৬ টকুরা রশি, একটি কেচি, দুইটি ত্রিপল ও হাসিল বই উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৩ ডাকাত আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে। গত শনিবার (১০ অক্টোবর)ঢাকা, সাভার, পাবনা ও সিরাজগঞ্জে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাতে ২২/২৩ জনের অজ্ঞাত একটি ডাকাত দল মুক্তাগাছা আরব এগ্রো ফার্মের দারোয়ানদের হাত, পা বেঁধে ২০ লাখ টাকা মুল্যের ১৬ টি গরু ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মুক্তাগাছা থানায় ডাকাতি মামলা হয়েছে। যার মামলা নং-২৫, তারিখ-২৮/০৯/২০২০ ইং ধারা-৩৯৫/৩৯৭ পেনাল কোড)। গ্রেফতারকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশ রবিবার ঢাকার আশুলিয়া থেকে মোঃ মুঞ্জুকে গ্রেফতার করে। সে খেজুর বাগান(সোহরাব মেম্বারের বাড়ির ভাড়াটিয়া। তার পিতার নাম মৃত এলাহি। পুলিশ জানায়, মুঞ্জু পেশায় কসাই। সে ডাকাতদের কাছ থেকে কমদামে ডাকাতির গরু কিনে ব্যবসা করে আসছে। তার কাছ থেকে মাংস বিক্রির ৫৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে আরেক আসামির কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। সোমবার তাকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
ময়মনসিংহ ডিবির সফল ওসি শাহ কামাল আকন্দ নিজে মাঠে থেকে আলোচিত এবং গরু ডাকাতির এই মামলাটি তদন্ত শুরু করেন। ওসি নিজে স্বল্প সময়ে টানা অভিযান পরিচালনা করে ডাকাতির ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেফতার করে।