আজ বৃহস্পতিবার ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০, ১লা মার্চ ২০২৪

শিরোনাম:
৯৯০ জনের বিপরীতে হাসপাতালের শয্যা একটি: সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এর চেয়ে ভালো নির্বাচন দেওয়া সম্ভব না: ইসি আনিসুর দৈনিক যুগান্তর ২৫ বছরে পদার্পণ উপক্ষে গৌরীপুরে এসএসসি ১৭ ব্যাচের মিলনমেলা দৈনিক যুগান্তর ২৫ বছরে পদার্পণ উপক্ষে গৌরীপুরে এসএসসি ১৭ ব্যাচের মিলনমেলা দৈনিক যুগান্তর ২৫ বছরে পদার্পণ উপক্ষে গৌরীপুরে এসএসসি ১৭ ব্যাচের মিলনমেলা শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস ও এর ফজিলত তারাকান্দায় ঘোড়ামারা খাল ভরাট করে পানি নিস্কাশনের ব্যাঘাত সৃষ্টি করা ১৩ গ্রামের দূর্ভোগ ময়মনসিংহ জেলা ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশনে মাহফুজ আহ্বায়ক সদস্য সচিব শহিদুল্লাহ! চিনির দাম বাড়ল কেজিতে ২০ টাকা তারাকান্দায় ঋন দেয়ার প্রলোভনে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়েছে প্রতারকচক্র, ম্যানজার আটক
||
  • প্রকাশিত সময় : জানুয়ারি, ৯, ২০২০, ৯:৩৪ অপরাহ্ণ




বিক্ষোভের ভয়ে আবারও আসাম সফর বাতিল মোদির

অনলাইন ডেস্ক :

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামে ১০ জানুয়ারির সফর বাতিল করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সফর বাতিলের এ ঘটনা গত এক মাসে দ্বিতীয়বারের মতো ঘটলো। বিশ্লেষকরা বলছেন, নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনকারীরা ব্যাপক বিক্ষোভের হুঁশিয়ারির পর ভারতের প্রধানমন্ত্রী সফর বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামে ১০ জানুয়ারি একটি জাতীয় স্তরের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির থাকার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের একটি সূত্র বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আসাম সফরে যাচ্ছেন না। তাছাড়া কেন্দ্রীয় প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো বা পিআইবির জারিকৃত সংবাদ বিবৃতিতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন এমন ব্যক্তিদের তালিকায় মোদির নাম নেই।

এরপর থেকেই বিশ্লেষকরা বলছেন সম্ভাব্য বিক্ষোভ ঠেকাতে মোদি এই সফর বাতিল করছেন। কেননা, মোদি আসাম যাবেন এমন খবর প্রকাশিত হওয়ার পর নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনকারী সংগঠনগুলো ঘোষণা দেয়, প্রধানমন্ত্রী আসামের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গেলে কালো পতাকা নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখানো হবে।

তাছাড়া, গতমাসে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের সঙ্গে গুয়াহাটিতে এক শীর্ষ বৈঠক হওয়ার কথা ছিল মোদীর। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ব্যাপক আন্দোলনে আসাম উত্তপ্ত হলে সেখানকার বৈঠক বাতিল করা হয়। তাই বিশ্লেষকরা দুই দুই চার মিলিয়ে বলছেন এবারও বিক্ষোভের ভয়ে আসাম যাচ্ছেন না মোদি।

তবে, বিজেপি নেতা রঞ্জিত দাশ এসব যুক্তিকে অমূলক উল্লেখ করে বলেন, ‘বিক্ষোভ হবে বলে দেশের প্রধানমন্ত্রী কোনো অনুষ্ঠানে আসবেন না, এসব বলার কোনও অর্থ হয় না। আর যে আন্দোলনের কথা বলা হচ্ছে, তাতে কত মানুষের সমর্থন আছে?’ ‘আমরা প্রতিদিন নানা জেলায় যেসব সভা সমাবেশ করছি, বিশেষ করে অসমীয়া এলাকায়, তাতে হাজার হাজার মানুষ আসছেন। এতেই বোঝা যায় যে আন্দোলনের পেছনে খুব বেশি সমর্থন নেই। তারা আবার প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কী বিক্ষোভ করবে? প্রশ্ন তোলেন বিজেপি নেতা।

উল্লেখ্য, গত ১১ ডিসেম্বর নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাশের পরই এর বিরুদ্ধে আন্দোলনে সরব হয় গোটা ভারতের অধিকাংশ রাজ্য। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভারতের আসাম।




Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও খবর




অনলাইন জরিপ

জাতিসংঘের বিশেষ দূত এলিস ক্রুজ বলেছেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সুফল সব মানুষের কাছে পৌঁছাচ্ছে না। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

View Results

Loading ... Loading ...

পুরনো সংখ্যার নিউজ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১