ফুলবাড়িয়ায় গভীন নলকুপ নিয়ে দ্বন্ধে নিহত এক ॥ আহত ১৩ ॥ আটক দুই

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ার পুঁটিজানা নামাপাড়া ড়ুামে গভীর নলকূপ নিয়ে সংঘর্ষে শহিদুল (৬৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। তার পিতার নাম আঃ গফুর। এ ঘটনায় উভয়দলের কমপে ১৩জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আছিয়া ও খুরশেদা নামের দুই নারীকে আটক করেছে। মঙ্গলবার সকালে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। প্রাপ্দ তথ্যে জানা গেছে, পুটিজানা নামাপাড়ায় দীর্ঘদিন ধরে গভীর নলকুপের শেয়ার নিয়ে ম্যানেজার ও পুটিজানা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার আলফাজ উদ্দিন নামীয়দের সাথে বিরোধ চলে আসছিল। মঙ্গলবার বুরো ধানেেত পানি দেয়া নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হলে উভয়দলের মাঝে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। সংঘর্ষে শহিদুল্লাহ (৬৫) নামের একজন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ ঘটনায় অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৬ জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে বলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সায়মা সুলতানা নিশ্চিত করেছেন। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ফুলবাড়িয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শহিদুল্লাহ লাশ উদ্ধার করে। এসময় দুই নারীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হল আলফাজ উদ্দিন (বড় আলফা) মেম্বারের ৫নম্বর স্ত্রী আছিয়া ও ছেলের বউ খুরশেদা।ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীনরা হলো, পারভিন (৩৫) বিলকিস (২৬) ফিরোজা (৫০) দুলাল (৪৩) আশিকুর (৩৫) রমিছা (৪০)। ফুলবাড়িয়া থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার জানান, গভীর নলকূপ নিয়ে দ্বদ্বে একজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় দুই নারীকে আটক করা হয়েছে।