পা হারানো রাসেলের ক্ষতিপূরণের রায় ১৫ এপ্রিল

বাহাদুর ডেস্ক :

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকারচালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণ দিতে জারি করা রুলের ওপর শুনানি শেষ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রায়ের জন্য ১৫ এপ্রিল দিন ধার্য করেছেন।

আদালতে গ্রিনলাইন পরিবহনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট হারুন অর রশিদ। রাসেল সরকারের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট খোন্দকার শামসুল হক রেজা।

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে ২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল গ্রিনলাইন পরিবহনের ধাক্কায় প্রাইভেটকারচালক রাসেল সরকারের (২৩) বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রাসেলের বাড়ি গাইবান্ধায়। এ ঘটনায় গাইবান্ধার একই এলাকার বাসিন্দা জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য (কৃষক লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক) অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি রিট আবেদন করেন। এই রিট আবেদনে হাইকোর্ট ওই বছরের ১৪ মে রুল জারি করেন। রুলে কেন রাসেলকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়।

পরে এক আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট এক আদেশে রাসেল সরকারকে ৫০ লাখ টাকা দিতে নির্দেশ দেন। প্রতি মাসে পাঁচ লাখ টাকা করে দিতে বলা হয়। এই নির্দেশের পর এ পর্যন্ত মাত্র সাড়ে ১৩ লাখ টাকা দিয়েছে গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ।

পরে গ্রিনলাইনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ১৩ অক্টোবর রাসেল সরকারকে টাকা দেয়ার আদেশ স্থগিত করেন আপিল বিভাগ।

টি.কে ওয়েভ-ইন