নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে হুমায়ূনকে স্মরণ করল ভক্তরা

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের অষ্টম মৃত্যু বার্ষিকী উপলে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে ভক্তরা। প্রয়াত লেখকে স্মরণ করতে ভক্তদের স্থানয় সংগঠন ‘কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ স্মৃতিপরিষদ’ এর উদ্যোগে রোববার দুপুরে পৌর শহরে গো-হাটা এলাকায় শোকর‌্যালি বের হয়।

র‌্যালি শেষে গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে হুমায়ূন আহমেদের স্মৃতি রা ও হূমায়ূন আহমেদের নামে একটি ট্রেনের নামকরণের দাবিতে মানববন্ধন পালন ভক্তরা। এরপর হূমায়ূন আহমেদের স্মরণে ইসলামাবাদ সিনিয়র মাদরাসায় বৃরোপণ ও দোআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বৃরোপণ শেষে হুমায়ূন আহমেদের স্মরণে ভক্তরা এক মিনিট নিরবতা পালন করেন।

সংগঠনের সভাপতি মোতালিব বিন আয়েত বলেন ‘গৌরীপুর জংশনন’ হুমায়ূন আহমেদের একটি কালজয়ী উপন্যাস। ২০১২ সালে লেখকের মৃত্যুর পর থেকে গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে হুমায়ূন আহমেদের স্মৃতি রা ও উনার নামকরণে একটি ট্রেনের দাবি জানিয়ে আমরা রেলমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছি। কিন্ত এখন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ এ বিষয়ে কোন পদপে নেয়নি। আশা রাখি কর্তৃপ এ বিষয়ে উদ্যোগী হবেন।

রিপোর্টাস কাবের সাবেক সভাপতি মহসীন মাহমুদ শাহ বলেন রেলযোগাযোগ ব্যবস্থায় ঈশা খা এক্সপ্রেস, বনলতা এক্সপ্রেস, মহুয়া এক্সপ্রেস সহ বিভিন্ন নামে ট্রেন চালু রয়েছে। তাই হুমায়ূন আহমেদ কিংবা তার উপন্যাসের চরিত্রের নামে ট্রেনের নামকরণের দাবিটি অযৌক্তিক নয়।

মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এসিক এসোসিয়েশনের সভাপতি রায়হান উদ্দিন সরকার, রিপোটার্স কাবের সাধারণ সসম্পাদক জহিরুল হুদা লিটন, ব্যবসায়ী পিয়াস পাল, আব্দুল গনি, জয়কুল, আব্দুল হাই, সুমন মিয়া

টি.কে ওয়েভ-ইন