ধর্ষককে গ্রেফতারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে: আইজিপি

অনলাইন ডেস্ক :

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিকে গ্রেফতারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি বলেন, বিষয়টি পুলিশের অগ্রাধিকারের তালিকায় এক নম্বরে আছে।

মঙ্গলবার রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে পুলিশ সদস্যদের আইজিপি ব্যাজ দেওয়ার পর সাংবাদিকের তিনি এ কথা বলেন।

জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, যে ঘটনাটি ঘটেছে এটি অত্যন্ত দুঃখজনক। দুষ্কৃতিকারীকে আইনের আওতায় আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। আমরা ঘটনাটি শোনার পর থেকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছি, আমাদের অগ্রাধিকারের মধ্যে এক নম্বরে আছে এটি।

তিনি বলেন, আমাদের সব টিম একযোগে কাজ করছে। আমরা আশাবাদী যে অতীতে যা ঘটেছে এবং প্রত্যেকটি ঘটনা উদঘাটন করতে সক্ষম হয়েছি, এই ঘটনাটিও উদঘাটন করতে সক্ষম হব।

রবিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে বান্ধবীর বাসায় যেতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ঐ ছাত্রী। বান্ধবীর বাসা শেওড়া হলেও ভুল করে তিনি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে বাস থেকে নেমে যান।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জানায়, বিমানবন্দর সড়কে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের কাছে গলফ ক্লাব সীমানার শেষ প্রান্তে ঝোপের মধ্যে মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়।

ওই শিক্ষার্থীর বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেল ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাস থেকে নামার পরপরই অজ্ঞাত পরিচয় কোনো লোক তার মুখ চেপে ধরে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে তিনি চেতনা হারান। এরপর রাত পৌনে ১টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়