দাম্ভিকতা : অনামিকা সরকার

দাম্ভিকতা

অনামিকা সরকার

হে পূরুষ,
তোমার দাম্ভিকতা কমাও
দূুুর করো তোমার অহমিকা,
তোমার অহংকারকে
ধূলোয় মিশিয়ে দাও
গুড়িয়ে দাও তোমার পাষান হৃদয়টাকে।
মাড়িয়ে দাও তোমার তেজস্বী রুপ।
নারীকে অধিকার দাও
ভালোবাসো একান্তে
নিরাপদে রাখো সযত্নে
জাগিয়ে তোলো নারীর চেতনাকে।

অন্ততঃ একজন নারী
যার জন্য এধরণীতে
তোমার আগমন তোমার বিচরণ।
তুমি উন্মাদ, তুমি উন্মুক্ত
যে গর্ভে ধারন করে
দশমাস কাটিয়েছো।

হে পূরুষ,
যাকে সাত পাকে বেঁধে
মালা বদল করে নিয়ে এসেছো
তোমার দেবালয়ে
একান্ত নিরালায়।
তোমার মন্জিলে।
এত কিছু করেও
সে নারী কেন তুচ্ছ তাচ্ছিল্য।

হে পূরুষ,
তোমার দাম্ভিকতায়
কোন এক হৃদয় ভেঙে যাচ্ছে
শেষ হয়ে যাচ্ছে।
তোমার চেতনাকে উন্মুক্ত কর
একমাত্র তুমিই পারো
তোমার সকল অক্ষমতাকে
ক্ষমতায় পারদর্শী হয়ে
জয়ী হতে।
কারন,তুমি আর কেউ নও
তুমি পূরুষ।
দাম্ভিকতা তোমার জন্য
অনস্বীকার্য।