তিথি পাল হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে গৌরীপুরে মানববন্ধন

মোখলেছুর রহমান, স্টাফ রির্পোটার : 
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মেধাবী স্কুলছাত্রী তিথি পাল হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে বুধবার (১৩ জানুয়ারি/২০২১) যুগান্তর স্বজন সমাবেশের উদ্যোগে দুর্ঘটনাস্থল শহরের পাটবাজারে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। এছাড়াও তিথি পালের বান্ধুবী সকালে একই স্থানে মোমবাতি প্রজ¦লন করে তিথিপালের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন।

বক্তরা বলেন, তিথি পাল শুধু নয়, এক বছরে গৌরীপুরে ৩৭জন সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানী ঘটেছে। এ মৃত্যুর মিছিল মেনে নেয়া যায় না। শিক্ষার্থীদের ১৪দফার একটি দফাও বাস্তবায়িত হয়নি। শহরে নিয়ন্ত্রনহীনভাবে ট্রাক, হ্যান্ডট্রলি, লরি চলাচল করছে। হাটের দিনে এই শহর অচল হয়ে পড়ে। এ থেকে মুক্তি চাই, চাই নিরাপদ সড়ক।

প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পৌর স্বজন সমাবেশের সভাপতি শ্যামল ঘোষ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন গৌরীপুর মানবাধিকার কমিশনের সাধারণ সম্পাদক ও যুগান্তর প্রতিনিধি মোঃ রইছ উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টি গৌরীপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো: আ: গফুর, গৌরীপুর উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো: মজিবুর রহমান ফকির, সাংগঠনিকি সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, গৌরীপুর রিপোটার্স ক্লাবের সভাপতি মো: রায়হান উদ্দিন সরকার, সাবেক সভাপতি মহসীন মাহমুদ শাহ, গৌরীপুর উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী’র সভাপতি মাজহারুল ইসলাম পলাশ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান, গৌরীপুর ড্রাগিস্ট এন্ড কেমিস্ট সমিতির সভাপতি কানাই লাল দাস, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী চন্দন এস, প্রদীপ ঘোষ, বিজয় মোদক, আহত রূপার বাবা উত্তম চক্রবর্তী, উপজেলা স্বজন সমাবেশের সাহিত্য সম্পাদক আমিরুল মোমেনীন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক উত্তম পাল, ইসলামাবাদ সিনিয়র মাদরাসার সহকারী শিক্ষক ইয়াহিয়া, গৌরীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যায়ের সহকারী শিক্ষক বিজন চন্দ্র সরকার, মো. মাসুদ মিয়া, বেখৈরহাটী নরেন্দ্র কান্ত উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শাহ আলম, দৈনিক স্বজনের গৌরীপুর প্রতিনিধি মোখলেছুর রহমান, বেসিক লার্নিং সেন্টারের পরিচালক মো: তোফাজ্জল হোসেন, গৌরীপুর সরকারি কলেজ স্বজন সমাবেশের সভাপতি আল আমিন, দৈনিক বাহাদুরের ওয়েব ইনচার্জ তাসাদদুল করিম, ব্যবসায়ী মো. হারুন মিয়া প্রমূখ।

২০২০সালের এই দিনে কোচিংয়ে যাওয়ার পথে রাস্তা থেকে প্রায় ৫ফুট দূরে গিয়ে দ্রুতগামী ট্রাকটির চাপায় পিইসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ ও ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত তিথি পাল পিষ্ঠ হয়। হত্যাকাণ্ডের পরপরেই বিচার চেয়ে গৌরীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, প্রতিবাদ-বিক্ষোভ ও নানা আন্দোলনে গৌরীপুর অচল হয়ে পড়ে। শুধু গৌরীপুর নয়, এ হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে ময়মনসিংহ, সুনামগঞ্জ, ভৈরব ও কিশোরগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি/২০২১) গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গৌরীপুর থানা পুলিশ ট্রাকের চালক নান্দাইল উপজেলার আগ মুসল্লী গ্রামের আঃ জব্বারের পুত্র মোঃ হুমায়ুন (৩২) ও ট্রাকের হেলপার একই উপজেলার আচারগাঁও গ্রামের আবুল হকের পুত্র মোঃ রবিন মিয়া (২২) এর ২৭৯, ৩০৪ (খ), ৩৩৮ (ক) ও ১০৯ পেনাল কোডের ১৮৬০ ধারায় চার্জশীট প্রদান করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, দুর্ঘটনা প্রতিরোধের জন্য প্রত্যেক এলাকায় বিটপুলিশিং কার্যক্রম করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের কলতাপাড়া ও ডৌহাখলা বাজারে সচেতনতামূলক এ কর্মসূচী পালন করা হয়।

এদিকে মঙ্গলবার তিথিপালের মধ্যবাজারের বাসায় গিয়ে দেখা যায়, তিথির পড়ার টেবিল সুসজ্জিত বইগুলো পড়ে আছে। তার কাপড়গুলোও নিয়মিত পরিস্কার করে রাখছেন তার মা রীতা পাল। হত্যাকাণ্ডের বিচারের প্রক্রিয়া নিয়ে ক্ষুব্দ নিহতের বাবা রঞ্জন কুমার পাল। তিনি বলেন, চার্জশিট দিয়েছে তারপরেও শুধু তারিখ পড়ে মামলার, চালক আর হেলপাড় সবাই জামিনে রয়েছে। এ ঘটনায় আহত তিথির বান্ধুবী রূপা চক্রবর্তী উঠে দাঁড়িয়েছে সবেমাত্র। তার চিকিৎসা চলছে, পুরোপুরি স্বাভাবিক জীবনে এখন ফিরতে পারেনি। সে কালিখলা শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্র‏‏‏‏হ্মচারী মন্দিরের কর্তা উত্তম চক্রবর্তীর কন্যা। তার বাড়ি নেত্রকোনার সুসংদুর্গাপুরে।

তিথি পালের মৃত্যু নিয়ে শুরু হয় ২০২০ গৌরীপুর। শিক্ষার্থীদের কড়া আন্দোলনের মুখে বন্ধ হয় বালুবাহী ট্রাক। তবে আন্দোলনকারীদের দেয়া ১৪দফা দাবি, এখনও কাগুজে সীমাবদ্ধ, এক দফাও বাস্তবায়িত হয়নি। অস্থির সড়কে স্বস্তি নেই, যোগ হয় সে বছর লাশের মিছিল!

টি.কে ওয়েভ-ইন

Print Friendly, PDF & Email