গৌরীপুরে ভাগ্নিকে ধর্ষণের অভিযোগে খালু গ্রেফতার

প্রধান প্রতিবেদক :
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ভাগ্নিকে ধর্ষণের অভিযোগে খালু সোহাগ মিয়াকে (৩৪) মঙ্গলবার ভোরে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওইদিন দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিন। অভিযুক্ত সোহাগ মিয়া উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের ফুলবাড়িয়া গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে।

মামলা ও পুলিশ সূত্র জানায়, সোহাগ মিয়ার বাড়ি উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের ফুলবাড়িয়া গ্রামে। ভুক্তভোগী মেয়েটির বাড়ি উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নে। দুই বছর পূর্বে সোহাগ মিয়া তার নিজের সন্তানদের দেখাশোনা করার জন্য তার স্ত্রীর বড় বোনের মেয়েকে তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। চলতি বছরের ১৫ অক্টোবর পর থেকে সোহাগ মিয়া নিজ বাড়িতে মেয়েটিকে বিভিন্ন সময় জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আসছিলো। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে সোমবার রাতে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার তদন্তকারী অফিসার মুহাম্মদ জামাল হোসেনের নেতৃত্ব পুলিশ অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার ভোরে অভিযুক্ত সোহাগ মিয়াগে গ্রেফতার করে।

নির্যাতনের শিকার মেয়েটির মা বলেন, আমার মেয়ে তার খালুর কাছে থাকলেও প্রায়ই বাড়িতে বেড়াতে আসতো। আমার বাড়িতে বেড়ানো শেষে গত ১৫ অক্টোবর মেয়েটি খালুর বাড়িতে চলে যায়। এরপর থেকে মেয়েটি বাড়িতে বেড়াতে না আসায় সোহাগের সাথে যোগাযোগ করে মেয়েকে বাড়িতে পাঠাতে বলি। বলার পরেও মেয়েকে না পাঠিয়ে কালক্ষেপন করতে থাকে। পরে আমি ওই বাড়িতে গিয়ে মেয়ের সাথে কথা বলে জানতে পারি সে ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে । গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বিজ্ঞ বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

টি.কে ওয়েভ-ইন