আজ বুধবার ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮, ১লা ডিসেম্বর ২০২১

প্রধান প্রতিবেদক || দৈনিক বাহাদুর
  • প্রকাশিত সময় : নভেম্বর, ২৪, ২০২১, ৫:৫৮ অপরাহ্ণ




গৌরীপুরে বিজয়ী হয়েও চেয়ারে বসতে পারেনি নৌকা প্রতিকের প্রার্থী হযরত আলী!

বিজয়ী ঘোষণার পরেও চেয়ারে বসতে পারেনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. হযরত আলী। তিনি আবারও নৌকা প্রতীক মনোনয়ন পেলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর সভাপতিত্বে গণভবনে অনুষ্ঠিত স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এ মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর/২০২১) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। চতুর্থ ধাপে ২৩ ডিসেম্বর এ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞ আইনজীবী ও মামলার বাদী সূত্রে জানা যায়, ২০১৬সালের ৩১মার্চ অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে গৌরীপুর উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোঃ আনোয়ার হোসেন (ঘোড়া প্রতীক) ৫হাজার ৫৯ ভোটে বিজয়ী ঘোষণা করেন রির্টাানিং অফিসার। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ হযরত আলী (নৌকা প্রতীক) পান ৫হাজার ২১ ভোট। এ বিজয়কে চ্যালেঞ্জ করে মোঃ হযরত আলী বাদী হয়ে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ সদর সিনিয়র সহকারী জজ ও নির্বাচন ট্রাইবুনালে ২টি ভোট কেন্দ্রের ভোট পুনঃগণনার আবেদন জানিয়ে মামলা দায়ের করেন। শুনানী শেষে উভয়পক্ষের উপস্থিতিতে শালীহর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শালীহর মধুসূদন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের ভোট পুণঃগণনা অনুষ্ঠিত হয়। পুণঃগণনায় ঘোড়া প্রতীকের ১০১টি ভোট বাতিল ও নৌকা প্রতীকের ৩ ভোট বৃদ্ধি পায়। ফলে ঘোড়া প্রতীকের ৪হাজার ৯৫৮ ভোট ও নৌকা প্রতীকের ৫হাজার ২৪ ভোট হয়। এরমধ্যে ১৫টি ভোট আপত্তিতে রেখে ৫১ ভোটে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ হযরত আলীকে বিজয়ী ঘোষণা করে ২০২০সালের ২৪মার্চ এ রায় দেন বিজ্ঞ বিচারক উমা রানী দাস। তিনি আরো বলেন, বাতিলকৃত ভোটগুলোতে নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত সীলের স্থলে হাতের ও পায়ের আঙুলের ছাপ দেয়া ছিলো।

এ রায়ের পর উচ্চ আদালতে আপীল করেন প্রতিপক্ষ ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মো. আনোয়ার হোসেন। উচ্চ আদালত থেকেও বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য নির্বাচন কমিশনে প্রেরণ করেন। নির্বাচন কমিশন আর আদালতপাড়ায় ঘুরতে ঘুরতে কাঙ্খিত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব থেকে বঞ্চিত হন বিজয়ী প্রার্থী মো. হযরত আলী। নির্বাচনী ট্রাইবুন্যালের রায়ে ৫১ ভোটে বিজয়ী ঘোষণার পরেও চেয়ারম্যানের চেয়ারে আর বসা হলো না! নির্বাচন কমিশন ৪র্থধাপে এ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করেছেন ১০ নভেম্বর।

আবারও নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে আনন্দে ভাসছেন মো. হযরত আলী ও তার কর্মী-সমর্থক। তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ জনগণের রায়ে এবার জিতবো। এবার প্রত্যেকটি কেন্দ্র পাহারা দেয়ার জন্য কর্মীদের এখনই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তার পুত্র উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন বলেন, নৌকার প্রত্যেকটি ভোট সুনিশ্চিত করতে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের অতন্ত্র প্রহরী হিসেবে কাজ করবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কর্মীরা।

উল্লেখ্য যে, ২০১৬সালের ৩১মার্চ নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণার পর মোঃ আনোয়ার হোসেন ওই বছরের ২৯ মে তারিখে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে শপথ গ্রহণ করেন। শপথ বাক্য পাঠ করান তৎকালীন জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী। শপথ নেয়ার পর থেকে এ ইউনিয়নের কার্যক্রম পরিচালনা করেন।




Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও খবর




অনলাইন জরিপ

সিপিডি বলেছে, দেশে জ্বালানি তেলের যে দাম বাড়ানো হয়েছে, তা অযৌক্তিক, অগ্রহণযোগ্য ও ভুল পদক্ষেপ। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?

View Results

Loading ... Loading ...

পুরনো সংখ্যার নিউজ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১