গৌরীপুরে খোলা বাজারে চালের জন্য উপচেপড়া ভিড় : ভঙ্গ হচ্ছে সামাজিক দুরত্ব

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে রোববার (১২ এপ্রিল/২০২০) খোলা বাজারে ১০টাকা কেজি চাল (ওএমএস কর্মসূচী) নিতে ডিলারদের দোকানে ছিলো উপচেপড়া ভিড়। বরাদ্দের চেয়ে চাহিদা ৫গুন! লাইন নিয়ন্ত্রণে পুলিশকেও হিমসিম খেতে হয়েছে। ছিলো না করোনা ভাইরাসের কারণে বেঁধে দেয়া সামাজিক দুরত্বের বিধানও।
সরজমিনে পৌর শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় চাল বিক্রি শুরু করেন ডিলার মোঃ দেলোয়ার হোসেন দুলাল। প্রতিদিনের বরাদ্দ ৫ কেজি করে ২শ জন পাবে একটন চাল। সেখানে দেখা যায়, চাল নেয়ার জন্য মানুষের দীর্ঘ লাইন। অপরদিকে স্টেশন রোড প্রিয়া সিনেমা হল এলাকায় চাল বিক্রি করেন ডিলার সুশান্ত সাহা প্রেমু। সেখানেও ছিলো দীর্ঘ লাইন। প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ জানান, ২০০জনের বরাদ্দ ছিলো। লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলো ৫/৬শ মানুষ। ফলে চাল না নিয়ে অনেককে বাড়ি যেতে হয়েছে।
অপরদিকে নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে চাল পায়নি পূর্বদাপুনিয়ার রেজিয়া খাতুন (৫৫)। তিনি জানান, সকাল থেকে এসেছি। এখন বলে চাল নেই। চাহিদা ব্যাপক, বরাদ্দ কম বিষয়টি স্বীকার করেন ডিলার মোঃ দেলোয়ার হোসেন দুলাল। তিনি জানান, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য পুলিশের সহযোগিতা নেয়া হয়েছে। তারপরেও সম্ভব হয়নি।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, চাহিদা বিষয়টি বিবেচনা করে আরো পৌর এলাকায় আরো একজন ডিলার নিয়োগ করা হয়েছে। এখন প্রতি সপ্তাহে ৩জন ডিলারের মাধ্যমে ৯টনে ১হাজার ৮শ মানুষ এ সুবিধা পাবেন। সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করার বিষয়েও ডিলারদের সতর্ক করা হয়েছে।