কালি ও কলম পুরস্কার প্রদান

বিনোদন ডেস্ক :

কবিতা, কথাসাহিত্য, প্রবন্ধ ও মুক্তিযুদ্ধ চার বিভাগের চারজন লেখককে প্রদান করা হলো ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার ২০১৯’। ‘জলপরিদের দ্বীপে’ কাব্যগ্রন্থের জন্য কবিতায় এবারের পুরস্কার পেয়েছেন কবি হানযালা হান, কথাসাহিত্য শাখায় লালবেজী গল্পগন্থের জন্য নবীন লেখক কামরুন নাহার শীলা,প্রবন্ধে শাখায় ‘সৈয়দ নজরুল ইসলাম :মহাজীবনের প্রতিকৃতি’ নামক গ্রন্থের জন্য ফয়সাল আহমেদ ও মুক্তিযুদ্ধ শাখায় ‘মুক্তিযুদ্ধে ভারতের চিকিৎসা সহায়তা’ গ্রন্থের জন্য এবারের পুরস্কার পেয়েছেন চৌধুরী শহীদ কাদের।
গতকাল বিকেলে ধানমন্ডির বেঙ্গল শিল্পালয়ে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয় হয়।

কালি ও কলম সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। পুরস্কারপ্রাপ্তদের শংসাবচন পাঠ করেন অধ্যাপক মাহবুব সাদিক ও কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। অতিথি ছিলেন শিল্পী রফিকুন নবী এবং নাট্যজন আসাদুজ্জামান নূর।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কালি ও কলমের প্রকাশক আবুল খায়ের এবং সম্পাদক আবুল হাসনাত। উপস্থিত অতিথিরা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কারের সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেন। অনুষ্ঠানে পুরস্কারপ্রাপ্তদের উপর একটি তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় পুরস্কার প্রদান পর্ব শেষে আবৃত্তি করেন আসাদুজ্জামান নূর। সবশেষে সেতার বাজিয়ে শোনান বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের বিদ্যার্থী সোহিনী মজুমদার।

নবীন কবি ও লেখকদের সাহিত্যের সৃজনধারায় গতি সঞ্চারের উদ্দেশ্যে ২০০৮ সাল থেকে ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’ প্রদান করে আসছে। পাঁচটি ক্ষেত্রে এ পর্যন্ত ৪৩ জন কবি ও লেখক এ পুরস্কার অর্জন করেছেন। এবারের পুরস্কার ছিল দ্বাদশবারের আয়োজন।