আনন্দ মোহন কলেজের বাংলা বিভাগের ২০০৫-৬ সেশন শিক্ষার্থীদের মিলনমেলা

 

মোখলেছুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজের বাংলা বিভাগের ২০০৫-৬ সেশনের প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থী ও শিক্ষকের সমন্বয়ে শুক্রবার (১২মার্চ/২০২১) এক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত মিলনমেলায় বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা বহুদিন পর একত্রিত হয়ে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে আবেগাপ্লুত হয়।  বহুদিন পর পুরনো বন্ধুকে পেয়ে এতো দিনের জমানো সব কথা যেন বাঁধভাঙা স্রোতের মতো বেরুতে থাকে। সকালটা কাটে সকলের উপস্থিতির অপেক্ষায়। একজন বন্ধু ক্যাম্পাসে আসার পর বাকি সব বন্ধুরা মিলে হইহুল্লোড় আর আনন্দে মেতে ওঠে।সকল বন্ধু একত্রিত হলে সকাল নয়টায় বাংলা বিভাগে কেককাটা হয়। কেককাটা শেষে একে অপরকে কেক খাইয়ে দেয়া, কেক খাওয়ানোর ছলে একটু কেক মাখিয়া দেয়াসহ পুরো ক্যাম্পাস যেনো আনন্দের ঝর্ণাধারা বইয়ে দেয়। কিছুক্ষণ এভাবে কাটানোর পর সকল বন্ধু মিলে শিক্ষকদের নিয়ে চলে যায় জয়নুল আবেদিন পার্কের ওপারে খোলা জায়গায়। সেখানে অস্থায়ী স্পেন্ডেল সাজিয়ে আলোচনাসভা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পর বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন বাংলা বিভাগের সেইসময়কার শিক্ষকগণ।
বহুদিন পর সকল বন্ধু একত্রিত হয়ে তারা অতীতকে সামনে এনে আনন্দে মেতে উঠেছিলো। পুরনো দিনের সেই হাসাহাসি, একজনকে দিয়ে আরেকজনকে ক্ষেপানো, মারামারি, আর আড্ডায় পুরো দিনটা তাদের কাছে এতো ভালো লেগেছিলো যে, মিলনমেলার দিনটা তাদের কাছে খুব ছোটই মনে হয়েছিলো।
আবু ফারাহ গাফফারি, ফয়সাল আহমেদ সুজন, নাজিম তালুকদার, জাহাঙ্গীর আলম, স্নিগ্ধা, খলিলুর রহমান প্রমুখের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং অন্যান্য বন্ধুদের অকৃপণ সহযোগিতার ফলে এ মিলনমেলার আয়োজন করা সম্ভব হয়েছিলো।

এছাড়াও এ মিলনমেলায় অন্যান্যদের মধ্যে মিন্টু, সনিয়া, আনিসুর রহমান রানা, আনোয়ার, অভি, রাসেল, জেসমিন আক্তার, মিথুন, শিমুল, হুমায়ুন কবির, মাহমুদুল হাসান, আব্দুল কুদ্দুস সজীব, রানা, সাইদুল ইসলাম, লিটু, কামাল হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, তুহিন দত্ত রনি, পল্টন, তানিয়া আক্তার, প্রীতি, শম্পা, লাভলী, শায়লা, শামীমা, বিজয়া মল্লিক, কামরুল ইসলাম ফকির, জাহাঙ্গীর আলম (ফুলপুরি), লুৎফর রহমান, মুকবুলা মঞ্জুরী বুবলী, রেখা দাস (লিপা), পারভিন সুলতানা ইতি, আশরাফুন নাহার বর্না, রোজি, ফেরদৌস আলম, রুপা সাহা, উজ্জ্বল, মোশারফ হোসেন, জহিরুল ইসলাম জহির, তানিয়া আক্তার অংশগ্রহণ করে।
সকল বন্ধুরা একত্রিত হয়ে সিদ্ধান্ত নেয় যে, এখন থেকে প্রতি বছরই তারা এভাবে মিলনমেলার মাধ্যমে আজীবন তাদের বন্ধুত্বকে জিইয়ে রাখবে। সেই লক্ষ্যে তারা ২০২২ সালের ১১ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পরবর্তী মিলনমেলার আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় এবং পরবর্তী মিলনমেলাকে সাফল্যমণ্ডিত করার জন্য একটি কমিটিও গঠন করে। সেই কমিটিতে ফয়সাল আহমেদ সুজনকে আহ্বায়ক ও নাজিম তালুকদারকে সদস্য সচিব করে নিম্নোক্ত কমিটি গঠন করা হয়।
যুগ্ম-আহ্বায়ক: কামাল, ছাইদুল, আবু ফারাহ্, খলিলুর রহমান, অভি, মিথুন, স্নিগ্ধা কবির।
সদস্যরা হলেন কামরুল ইসলাম ফকির, তুহিন দত্ত, রিপন, সনিয়া, আব্দুল কদ্দুস সজীব, আনিসুর রহমান রানা, শিমুল, গোলাম মোস্তাফা, রূপা।

Print Friendly, PDF & Email