আগমনী : অনামিকা সরকার

প্রভাতে ঘুম ভাঙ্গলো
ঢাকের বারির সুরে,
আসছে মা মত্তে এবার
আবার বছর ঘুরে।
দেবী তোমার আগমনীতে
শিশির বিন্দু ঘাসে,
নদীর কূল ছেয়ে গেছে
শুভ বরন কাশে।
শরতের সারদপ্রাতে
শিউলি ফুল ফোটে
সূর্যদয়ের পুর্বে শিউলি
মাটিতে ঝরে পরে।
নীলে নীলিমায় শুভ্র মেঘের
ভেলায় তারই সাথে
মনের হরষে পুলকিত জাগে
হরেক রকম খেলা।
মহালয়ার শেষে যখন মগ্ন ত্রিভুন
তখন থেকে আকাশে বাতাসে বাজছে
মায়ের আগমন।
মা তার সন্তানদের নিয়ে
মত্তে যখন হেনো
বাহন গুলো মায়ের সাথে
সঙ্গে থাকে যেনো।।
ওরা ছাড়া মায়ের পুজো
পূর্ন হয় কি কখনো।
পঞ্চমীতে মায়ের বোধন সন্ধ্যাপ্রাতে
ষষ্ঠীতে মায়ের বেল্যপত্রে চক্ষু দানে
সপ্তমী তে আন্জলী দেই
ফুল বেল্যপত্র মায়ের চরনে।।
অষ্টমীতে কুমারী পূজো
সন্ধিপুজার মহা আরতিতে
নবমী ভক্তিমনে মায়ের দর্শন করি
দশমীতে করুন সুরের ঢাকের ধ্বনি
সিদূঁর খেলায় মাতি
মায়ের বিসর্জনে
বিজয়ার আলিঙ্গনে।
মহিষাসুর বধ করে মাগো
করছো তমসা দূুর
আনন্দে মাতলো ভুবন
বাজে আগমনীর সুর।
বিদায় জানাতে মাকে
কেউ চায়না মনে
চারিদিকে শোকের ছায়া
মায়ের বিসর্জনে।
মাগো তুমি দূর্গতি নাশিনী
এসো বছর ঘুরে
মিলবো সবাই একমনে
আসছে বছরে আবার হবে।
#অনামিকা#
২১-১০-২০